বায়োনিক রিডিং - দ্রুত পড়ার অভিনব কৌশল

বায়োনিক রিডিং হলো দ্রুত পড়ার একটি কৌশল , যা সুইজারল্যান্ডের টাইপোগ্রাফিক ডিজাইনার রেনাটো ক্যাসাট উদ্ভাবন করেছে। বায়োনিক রিডিং পদ্ধতিতে দ্রুত পড়া যায়।
বায়োনিক রিডিং দ্রুত পড়ার অভিনব কৌশল

পড়ার অভ্যাস মানুষকে আলোর পথে নিয়ে আসে। যারা বেশি পড়েন, পড়া তাদের চিন্তা জগতকে আরো প্রসারিত করে তুলে। জ্ঞানীরা সবসময়ই বলেন জ্ঞানের সমুদ্রের সন্ধান পেতে হলে পড়ার বিকল্প নেই। একজন নিঃসঙ্গ ব্যাক্তির জীবনে সবচে ভালো সঙ্গী হচ্ছে পড়া, সেটা বই হোক বা অন্য কিছু। পড়ার মাধ্যমে মানুষ এক জায়গা বসে অনেক জায়গা ঘুরতে পারে, বুঝতে পারে, জীবনের অর্থ খুঁজতে পারে। পড়ার চেয়ে ভালো সঙ্গী আর কী হতে পারে? এখন স্মার্ট ডিভাইসে খুব সহজে পড়া যায়। পড়ার সুযোগ এখন অনেকটা সহজ হয়ে গেছে, তবে এই সুযোগ কী মানুষকে অলস করে দিচ্ছে?

দীর্ঘ কোনো লেখা দেখলেই প্রথমটা পড়ে বাকিটা পড়ার ধৈর্য্য হারিয়ে ফেলেন অনেকেই।আপনি যখন দীর্ঘ কোনো একটি লেখা পড়ার চেষ্টা করেন তখন কি বারবার মনোযোগ হারিয়ে ফেলেন? 

এই ব্যাপারটা অনেকের সাথে প্রায়ই হয়ে থাকে, যেটাকে সাধারণত বলা হয় রিডার্স ব্লক। এটা এমন একটা পরিস্থিতি যখন কেউ চাইলেও পড়ায় মন বসাতে পারেনা বা অল্প একটু পড়েই ধৈর্য্য হারিয়ে ফেলে। কেমন হতো, যদি এই ধৈর্যের বাঁধ শক্ত করা যায় কিংবা রিডার্স ব্লকে থেকেও অনায়াসে লম্বা লেখা পড়ে ফেলা যায়?


 সম্প্রতি এমনই একটি নতুন পঠন সিস্টেম উদ্ভাবিত হয়েছে, যা আপনাকে লম্বা লেখা মনোযোগের সাথে পড়তে সাহায্য করবে। পড়া আরও দ্রুত এবং আরও মনোযোগী করার জন্য 'বায়োনিক রিডিং' নামের এই পদ্ধতি সম্প্রতি ভাইরাল হয়েছে। ২০২২ মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তায় সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনার জন্ম দিয়েছে 'বায়োনিক রিডিং' নামের এই পদ্ধতিটি। 

 ইউএক্স লেখক এবং টুইটার ব্যবহারকারী জুয়ানবুইস তার টুইটারে বায়োনিক রিডিং নিয়ে একটি ছবি শেয়ার করেছেন। তিনি বলেছেন: 

বায়োনিক রিডিং মস্তিষ্ককে ১০০% আনলক করে দেয়
বায়োনিক রিডিং নিয়ে জুয়ান বুইস এর টুইট


"বায়োনিক রিডিং সম্ভবত মানুষের মস্তিষ্ককে ১০০% আনলক করে দিতে সক্ষম হবে।"

এই কথাটি প্রায় ১২ লাখেরও বেশি লাইক এবং হাজার হাজার রিটুইট হচ্ছে টুইটারে। ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা সাধারণ পাঠ্য এবং নতুন বায়োনিক রিডিংয়ের মধ্যে পার্থক্য দেখে অবাক হচ্ছে।

বায়োনিক রিডিং কি?

বায়োনিক রিডিং (Bionic Reading) হলো দ্রুত পড়ার একটি কৌশল, যা উদ্ভাবন করেছেন সুইজারল্যান্ডের টাইপোগ্রাফিক ডিজাইনার রেনাটো ক্যাসাট।
 বায়োনিক রিডিং পদ্ধতিতে কোনো শব্দের প্রথম সংক্ষিপ্ত অংশটুকু হাইলাইট বা বোল্ড করে দেয়া হয় এবং একটি কৃত্রিম ফিক্সেশন পয়েন্ট তৈরি করা হয়। যার ফলে শব্দের প্রথম অংশ পড়েই পাঠক পুরো শব্দটা বুঝতে পারে এবং দ্রুত মনোযোগের সাথে পড়তে পারে। 

 এই পদ্ধতির উদ্ভাবক রেনাটো ক্যাসাট বলেছেন: "বায়োনিক রিডিং পাঠককে কোনো লেখার শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য ধরে রাখতে সক্ষম। "

দ্রুত পড়ার পদ্ধতি

কোনো পাঠ্য দ্রুত পড়ার জন্য বায়োনিক রিডিং একমাত্র উদ্ভাবিত পদ্ধতি নয়, এরকম আরো অনেক পদ্ধতি অনেকে দেখিয়েছেন। যেমন: স্পিড রিডিং।
 রেনাটো ক্যাসাট বলেছেন, বায়োনিক রিডিং এবং স্পিড রিডিংয়ের মধ্যে পার্থক্য রয়েছে।
 
 "বায়োনিক রিডিং শেখার দরকার নেই, কারণ এটি স্বজ্ঞাতভাবে ঘটে। বায়োনিক রিডিং এর মাধ্যমে অনেকেই দ্রুত পড়তে পারে, অনেকের ডিসলেক্সিয়া আছে যারা বায়োনিক রিডিং পদ্ধতিতে ভালো পড়তে পারে।। কিন্তু এমন পাঠকও আছে যাদের পেশাগতভাবে আরও মনোযোগ দিয়ে পড়া উচিত।"

দ্রুত পড়তে সমস্যা হয় কেন?

  ডিসলেক্সিয়া সেন্টার অব উটাহ এর রিপোর্টে দেখা গেছে, প্রতি পাঁচজন শিক্ষার্থীর মধ্যে একজন বা জনসংখ্যার ২০ শতাংশের মধ্যে একটি ভাষা-ভিত্তিক শেখার অক্ষমতা আছে। তারা একপ্রকার পড়ার সাথে লড়াই করে।
বায়োনিক রিডিং নির্মাতারা বলছে- 
বায়োনিক রিডিং পদ্ধতিতে ডিসলেক্সিয়ায় আক্রান্ত ব্যক্তিরা বিভিন্ন পাঠ্যের বিষয়বস্তু প্রথমবার পড়ার সাথে সাথেই বুঝতে পারছে।

বায়োনিক রিডিং এর ব্যবহার

সোশ্যাল মিডিয়ায় আলোচনায় রয়েছে বায়োনিক রিডিং পদ্ধতি। অনেকেই এটাকে ইতিবাচকভাবে গ্রহণ করছে। দ্রুত পড়ার এই অভিনব কৌশলটি বাস্তব এবং প্রত্যাহিক জীবনে ব্যবহার করার জন্যেও জানাচ্ছেন অনেকে। কেউ কেউ বলছেন এডিএইচডি এর মতো সমস্যাতেও বায়োনিক রিডিং চমৎকার ফলাফল দিচ্ছে। এখন পর্যন্ত দ্রুত ও মনোযোগের সাথে পড়ার জন্য অন্যতম একটি উপায় হলো বায়োনিক রিডিং। 

বায়োনিক রিডিং ব্যবহার করবো কিভাবে

বায়োনিক রিডিং
বায়োনিক রিডিং 


রেনাটো ক্যাসাট একটি অ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছেন যার নাম বায়োনিক রিডিং। এই টুলটি ব্যবহার করে আপনার স্মার্ট ডিভাইসে বায়োনিক রিডিং পদ্ধতিতে পড়তে পারবেন। বর্তমানে এই টুল কিছু এন্ড্রয়েড ফোন এবং অ্যাপল IOS এবং আইপ্যাডের জন্য তৈরি করা হয়েছে, যেটি ডাউনলোড এবং ইন্সটলের মাধ্যমে আপনি ব্যবহার করতে পারবেন। এক্ষেত্রে এন্ড্রয়েড ডিভাইসে আপনি এমুলেটরের মাধ্যমে টুলটি ব্যবহার করতে পারবেন। ভবিষ্যতে সব ধরণের ডিভাইসের জন্য এটা সহজলভ্য হবে। ইতিমধ্যে গুগল ক্রোমে বায়োনিক রিডিং এক্সটেনশন যুক্ত করা হয়েছে যা গুগল ক্রোম ডেস্কটপ ব্রাউজার থেকে ব্যবহার করা যাবে।

ionic reading example, Bionic reading pdf, Bionic reading converter, Bionic reading generator, Bionic Reading Chrome, How to use bionic reading, Bionic Reading Android, Bionic Reading Font, Does Bionic Reading Work, Bionic Reading review, What is bionic reading, Bionic Reading Bangla, Bionic Reading firefox, bionic reading reddit, Bionic meaning, বায়োনিক রিডিং কি, বায়োনিক রিডিং কিভাবে, বায়োনিক রিডিং কোথায়, বায়োনিক রিডিং পদ্ধতি, বায়োনিক রিডিং কৌশল, বায়োনিক রিডিং নির্মাতা, বায়োনিক রিডিং এর উপকারিতা, বায়োনিক রিডিং ২০২২, কীভাবে দ্রুত পড়া যায়, দ্রুত পড়ার কৌশল, রিডার্স ব্লক, রিডার্স ব্লক কাটানোর উপায়, বায়োনিক রিডিং এর ব্যবহার, মোবাইলে বায়োনিক রিডিং, কম্পিউটারে বায়োনিক রিডিং, বায়োনিক রিডিং অনুলিখন

Getting Info...
Cookie Consent
Dear! We serve cookies to optimize your experience.
Oops!
It seems there is something wrong with your internet connection. Please connect to the internet and start browsing again.
AdBlock Detected!
We have detected that you are using adblocking plugin in your browser.
The revenue we earn by the advertisements is used to manage this website, we request you to whitelist our website in your adblocking plugin.
Site is Blocked
Sorry! This site is not available in your country.